হায়রোগ্লিফের দেশে- ১ প্রথম পিরামিড

ধুস, লিওনার্দো তো কালকের ছেলে। ইমহোটেপ ওকে বলে বলে দশটা গোল দিত। তো যাই হোক, রাজা তো ইমহোটেপকে ওর কবর খানা বানাতে বলে খালাস। কিন্তু সেই জিনিস বানানো যায় কি করে! পাথরের ওপরে পাথর বসিয়ে উঁচু কিছু বানাতে গেলেই যে ব্যালান্স নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

ভ্যালেন্টাইন দেহি নমোহস্তুতে

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-র আগে অবশ্য কুল খাওয়ার কোন বাধা থাকে না। তবে আজকের দিন টা স্পেশাল। শাড়ি তো অন্য দিনও মেয়েরা পরে। তবে সজারুর মনে হয় বাসন্তী শাড়ি তে মেয়ে গুলো হঠাৎ আজ কেমন যেন অনেকটা ম্যাচিওর হয়ে ওঠে।

লেখা ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সনাতনবাবুর প্ল্যানচেট

সনাতনবাবু টেবিলের ড্রয়ার থেকে মোমবাতি বার করে দেশলাই দিয়ে জ্বালিয়ে মোমদানির ওপর বসিয়ে দিলেন। ঘরের আলো নিভিয়ে এসে বসলেন নিজের চেয়ারে আর খুঁটিয়ে দেখতে লাগলেন অসীম বিশ্বাসের ছবিখানা। ভদ্রলোকের বয়স বেশি হলেও মুখে সেরকম ছাপ পড়েনি।

লেখা ও কভার স্কেচ ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আমার শীতের আদরটা

উঠোন ময় ছেঁড়া ছেঁড়া তুলো উড়ছে। আর একটা অদ্ভুত গন্ধে ভরে আছে চারপাশটা। ওই তুলো এর পরে ঢুকে পড়বে শাড়ীর মাঝে। মোটা লাল সুতো দিয়ে মোড়া হবে তার চারপাশ।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অনুরাগ

দূর থেকে প্রেমে জন্মবদল, আবার ফিরবো দেখো;
ততদিন তুমি আবেগী বাষ্পে
পরিনত হতে শেখো।
#Rhymics #AnariMinds #ThinkRoastEat

সান্টা বুড়ি

ছা পোষা বাঙালির প্রথম বিদেশ যাত্রা , এবং প্রথম শীতের ছোবল । জ্ঞানত সব থেকে গরম সোয়েটার গুলোকে এখানের শীত বলে বলে ১০ গোল দিয়েছে । মাইরি , কাশ্মীর থেকে […]

একখান পেমের গপ্পো

হাড্ডি কে ছেড়ে দুই কাবাবের জমপেশ লীলাখেলা শুরু হল এবার। সাত্যকি মিলি জুটির নাম শোনেনি এমন ছেলে মেয়ে খুঁজে পাওয়া ভার। তবে আদর করে মিলি কে একটা স্পেশাল নামে ডাকে সাত্যকি, সেটা ওরা দুজন ছাড়া শুধু আমিই জানি, সেটা হল “সনপাঁপড়ি”, নামকরণের কারণ আমায় শুধাবেন না প্লিজ।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Pre-Wedding

– “Dirty mind! Will observe your self control then. I anticipate a birthday celebration before first anniversary!”
– “A blessing or a curse? Cousins are planning to put cam in our room.”

Author ~ Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বিলম্বিত লয়

সে যাইহোক, আজ সন্ধেবেলা সায়ন এসে বসলো পার্কের কোণার দিকের বেঞ্চ টায়। সকালে এই অঞ্চলের অনেকেই আসে মর্নিং ওয়াক করতে, আবার বিকেলের দিকটায় প্রেমিক যুগল দের ভিড়। এদের সবার নজর এড়িয়ে কোণার দিকের বেঞ্চ টাই সায়নের বড় পছন্দের, ওকে কেউ দেখতে পায়না, কিন্তু ও প্রায় সবাইকে দেখতে পায়।

লেখক ~ অয়ন ভট্টাচার্য
#AnariMinds #ThinkRoastEat