পুরুলিয়া পাঁচালি – ১

কবিতার খাতা, বাংলা

চার মূর্তি চক্রধরে করিয়া শয়ন ,
সাতটা দশে,বরাভূমে মেলিল নয়ন।
গ্রামের ইস্টিশান,অতি মনোরম,
ঝাড়খন্ড বোধ করি,বেঙ্গল কম।

ড্রাইভার সদানন্দ করিতেছিল ফোন,
লইয়া গেল বারেরিয়া,থাকা প্রয়োজন।
রাস্তার দুটি ধারে পলাশের শোভা,
পরস্পর মুখ চাহি,কমপ্লিট্ বোবা।

আরণ্যক লজে দেখি ভয়ানক ভীড়,
পিকনিক পার্টি দেখি,মুডে ধরে চিড়।
মালিক ভীষণ ভাল,বুঝিলেন ব্যথা,
কুরবানদার সাথে বলিলেন কথা।

মানভূম লজে গিয়া মন হইল তাজা,
বেশ ভাল নিরিবিলি,সবুজের রাজা।
ব্রেকফাস্টে মাখাইয়া মুড়ি চানাচুর,
চর্বণে হইল স্টার্ট পুরুলিয়া টুর।

খয়রাবেরা ড্যামখানি অতি চমৎকার,
প্রাক্কালে গোধূলিতে ভ্রমণ বেটার।
এরপর সোজা ধাই চড়িদার পানে,
মুখোসের গ্রামখানি ছাপিয়াছে মনে।

সাতপুরুষের পেশা,শিল্পতে ঘেরা,
মুখোস বানান বসে ছোড়া হইতে বুড়া।
কেনাকাটি অন্তে ছুঁচোর গাজন।
মুর্গীর ঝোলভাতে সাঙ্গ ভোজন।

পাখি আর মাথা পাহাড়,নট আহামরি,
ভাবিলাম মাঝে ,সেই ড্যামে ব্যাক করি। যাহা হোক এভাবেই ডে ওয়ান শেষ,
লজের বাগানে ঘুরি হুইস্কির দেশ।
রান্নাও উত্তম,ডিনার টি সেরে,
বিছানায় উল্টাই, বেহোশীর ঘোরে।

কলমে ~ গুলগুলভাজা

কলমে ~ গুলগুলভাজা

ছবি ~ গুলগুলভাজা

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.