অন্তিম যাত্রা

সিনেমা ভালো লাগবে না মন্দ লাগবে সেটা যেমন ছবির ধারাপ্রবাহের ওপর নির্ভর করে, ঠিক সেরম ভাবেই নির্ভর করে সেই ছবির থেকে আপনার নিজের কি এক্সপেক্টেশান। বুঝিয়ে বলি, আপনি সিনেমা হলে স্টুডেন্ট অফ দ্যা ইয়ার দেখতে গেলেন এই আশা নিয়ে যে এখানে একটা ছাত্র প্রচুর পড়াশোনা করে ব্ল্যাক হোল নিয়ে একটা দারুন থিসিস দিয়ে, প্রচুর প্রাইজ ফ্রাইজ পেয়ে একদম একাকার করে দেবে; তারপর গিয়ে দেখলেন অমুক অভিনেতা আর অভিনেত্রী বুট ডুবে যাওয়া বরফের মধ্যে টি শার্ট আর চিকনের কুর্তি পরে নাচছে। আপনি আশাহত হবেনই। কিন্তু যদি উল্টোটা হয় তাহলে একটা শক লাগার মতো ব্যাপার হবে। সব শেষে কি দেখলাম না দেখলাম এসব গুলিয়ে গিয়ে নিজেকে ভালোটা বোঝাতে চেষ্টা করবেন, আপনই জিতবেন।

বাঙালির গেম অফ থ্রোন্স

#বাঙালির_গেম_অফ_থ্রোনস

‘গেম অফ থ্রোনস’ এর জ্বরে এখন কাঁপছে সবাই। বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হচ্ছে বাড়িটাই ব্রাভোস। আচ্ছা, আমাদের বিখ্যাত কবিরা গেম অফ থ্রোনস দেখলে কী লিখতেন? আনাড়িরা টাইম ট্রাভেল করে তাদেরকে দিয়ে চার পাঁচ লাইন লিখিয়ে আনলো। আপনারা পড়ে দেখুন তো একবার।
😉😉😉😉

কবিদের ডিকটেট করা কবিতা শুনে লিখেছেন ঋতুপর্ণা, দেবপ্রিয় আর সাবর্ণ্য। ওঁদের ধন্যবাদ।

পাঠকের চোখে – দেবী

#পাঠকের_চোখে
উপন্যাস ~ ♦#দেবী♦
লেখক ~ #হুমায়ূন_আহমেদ

অর্ধাঙ্গিনী

নীহারিকা কেঁপে উঠে হাতটা শক্ত করে চেপে ধরল, “বিক্রম, আস্তে….!” ঘরের কোণে জ্বলতে থাকা দুটো লাল মোমবাতির স্নিগ্ধ আলো এই মুহূর্তকে যেন আরও রোমাঞ্চকর করে তুলেছে। বিক্রম ছাড়িয়ে নিল ওর হাত, টেনে নিল নীহারিকার মোহময়ী শরীরটাকে নিজের আরও কাছে, পিঠে পড়ল আদরের দাগ, ওষ্ঠ অধরের এক নৈসর্গিক খেলায় মেতে উঠল দুটো শরীর।

সাতরঙা

ওই দৃশ্য দেখে কাকিমা নিজেকে ঠিক রাখতে পারেননি, কোনো কথা না বলে নিঃশব্দে ঘর থেকে চলে গিয়েছিলেন,কয়েক মাসের মধ্যেই কাকিমা সুইসাইড করেন।

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী

স্কুলের পোশাকে ছবি

বাচ্চাকে যত ভালো স্কুলেই পড়ান না কেন, সে কোন স্কুলে যাচ্ছে, সেই তথ্য দেবেন না ফেসবুকে। স্কুলড্রেস পরা ছবি থেকেও খুব সহজেই কোন স্কুল জানা যায়। সেইরকম ছবি দেবেন না ফেসবুকে বা ইন্সটাগ্রামে।

লেখিকা ~ ঋতুপর্ণা চক্রবর্তী

স্ক্যালপেল-৬ / স্তন নিয়ে দু চার কথা

সার্জারির ডাক্তারবাবুকে তারপরে কাজের কথায় আসতেই হল। বুকে জল জমল কেন? কি করে বোঝা গেল জল জমেছে? কাকিমা বললেন কদিন ধরে শ্বাস কষ্ট হচ্ছিল খুব, সেখান থেকেই বুকের এক্সরে করা, তাতেই ধরা পড়ল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds

স্ক্যালপেল_১৪

আমার ঈশ্বর তখন এক পলের জন্য অবাক হয়েছিলেন মনে হয়। এই প্রথম বার আমার মুখে ওঁর নামের অন্য ডাক শুনে। ঠিক যেমনটা আমি আমার মেয়ের মুখে ‘পাপা’ শুনে তাকাই।

ডাউনলোড “হায়রোগ্লিফের দেশে”!! (সীমিত সময়ের অফার)

ক্লিক করুন এই লিঙ্কে আর পেয়ে যান হায়রোগ্লিফের দেশে বইয়ের পিডিএফ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে!