আলোর উৎসে – ২ – অনির্বাণ ঘোষ

থিবসের সূর্য ঝলমলে আকাশে আজ খুশির আলো। বাতাসে খুশির গন্ধ। আজ থিবসে ওপেতের উৎসব। রাস্তার দু’পাশে তাই নেমেছে সাধারণ মানুষের ঢল। রাস্তার মাঝখান দিয়ে এক বিশাল শোভাযাত্রা এগিয়ে চলেছে লাক্সারের আমুন-রা’র মন্দিরের দিকে। সেই শোভাযাত্রায় আছেন দেশের সর্বশক্তিমান মানুষটিও। আজ তার জন্যও বড় একটি দিন। আজই তিনি ফারাও হবেন। সূর্য দেবতা আমুন-রা এর শক্তি আজ প্রবাহিত হবে তাঁর আত্মা ‘কা’ এর মধ্যে।

কিন্তু এ কী! এ কী হচ্ছে!! দিনের আলো কমে আসছে কেন? চারদিকে হঠাৎ অন্ধকার নেমে আসছে কেন? তবে কি স্বয়ং আমুন-রা কুপিত হয়েছেন? তাই তাঁর অভিশাপ নেমে আসছে মিশরের বুকে!!

লেখা ~ অনির্বাণ ঘোষ
অলংকরণ ~ শুভম ভট্টাচার্য

আলোর উৎসে – ১ – অনির্বাণ ঘোষ

থিবসের সূর্য ঝলমলে আকাশে আজ খুশির আলো। বাতাসে খুশির গন্ধ। আজ থিবসে ওপেতের উৎসব। রাস্তার দু’পাশে তাই নেমেছে সাধারণ মানুষের ঢল। রাস্তার মাঝখান দিয়ে এক বিশাল শোভাযাত্রা এগিয়ে চলেছে লাক্সারের আমুন-রা’র মন্দিরের দিকে। সেই শোভাযাত্রায় আছেন দেশের সর্বশক্তিমান মানুষটিও। আজ তার জন্যও বড় একটি দিন। আজই তিনি ফারাও হবেন। সূর্য দেবতা আমুন-রা এর শক্তি আজ প্রবাহিত হবে তাঁর আত্মা ‘কা’ এর মধ্যে।

কিন্তু এ কী! এ কী হচ্ছে!! দিনের আলো কমে আসছে কেন? চারদিকে হঠাৎ অন্ধকার নেমে আসছে কেন? তবে কি স্বয়ং আমুন-রা কুপিত হয়েছেন? তাই তাঁর অভিশাপ নেমে আসছে মিশরের বুকে!!

লেখা ~ অনির্বাণ ঘোষ
অলংকরণ ~ শুভম ভট্টাচার্য

ফেরা

নৈহাটি  স্টেশনে নেমে একটা বড় হাই তুললেন বছর ষাটের চিত্তবাবু, একদম ঘুমিয়ে পড়েছিলেন ট্রেনে। ভাগ্যিস পাশে বসা ছোকরাটা বিকট শব্দে হাঁচল, আর উনি চোখ খুলেই দেখলেন কাঁকিনাড়ার প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে গাড়ি বেরোচ্ছে। নড়ে চড়ে বসে বাঙ্ক থেকে ছোট সু্টকেসটা নামিয়ে জানলার হাওয়ায় এলোমেলো হয়ে যাওয়া চুলটা ঠিক করতে করতেই নৈহাটি এসে গেল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ

একলা ঘর

আশ্চর্য ব্যাপার! এবারেও কেউ উত্তর দিল না। দীপ কৌতুহলবশত আর একটু এগোতেই দেখতে পেল সামনে ফাঁকা ড্রয়িং রুমে একটা হাল্কা নীলাভ আলো জ্বলছে, আর সেই ঘরেরই শেষ প্রান্তে রাখা একটা বিশাল মিউজিক সিস্টেমে বাজছে সেই গান। সাহস করে ড্রয়িং রুমে ঢুকে দীপ লক্ষ্য করল যে ফ্ল্যাটের মালিক বোধহয় একটু আগেই বাইরে গেছেন।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি

ডেঙ্গু রুখতে জিনের ছুরি

দুঃখের বিষয় এই যে এত কিছুর পরেও এইডিশ মশাদের বাগে আনা যায়নি। ওরা বেশ ধুরন্ধর, বার বার নিজেদের বদলেছে, বাজার চলতি মশা মারার ওষুধের বিরূদ্ধে সক্রিয় হয়ে উঠেছে। প্রতিটা দিনের সাথে রক্তবীজের মতো বাড়ছে এদের বংশ।

তাহলে উপায়?

লেখা ~ অনির্বাণ ঘোষ

স্ক্যালপেল-৬ / স্তন নিয়ে দু চার কথা

সার্জারির ডাক্তারবাবুকে তারপরে কাজের কথায় আসতেই হল। বুকে জল জমল কেন? কি করে বোঝা গেল জল জমেছে? কাকিমা বললেন কদিন ধরে শ্বাস কষ্ট হচ্ছিল খুব, সেখান থেকেই বুকের এক্সরে করা, তাতেই ধরা পড়ল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds

স্ক্যালপেল_১৪

আমার ঈশ্বর তখন এক পলের জন্য অবাক হয়েছিলেন মনে হয়। এই প্রথম বার আমার মুখে ওঁর নামের অন্য ডাক শুনে। ঠিক যেমনটা আমি আমার মেয়ের মুখে ‘পাপা’ শুনে তাকাই।

পাঠকের চোখে – একটি পেরেকের কাহিনী

বই ~ ♦#একটি_পেরেকের_কাহিনী♦
লেখক ~ #সাগরময়_ঘোষ
প্রচ্ছদ ~ #পূর্ণেন্দ_পত্রী
প্রকাশক ~ #আনন্দ_পাবলিশার্স
প্রথম প্রকাশ ~ #জানুয়ারি_১৯৭১

পাঠকের চোখে – অলাতচক্র

বই ~ #অলাতচক্র
লেখক ~ #তারাদাস_বন্দ্যোপাধ্যায়
প্রকাশক ~ #মিত্র_ও_ঘোষ