কিচ্ছু চাইনি আমি, আজীবন ভালবাসা ছাড়া

কিচ্ছু চাইনি আমি, আজীবন ভালবাসা ছাড়া

পাঠকের চোখে – বটকৃষ্ণবাবুর বুলেট

পাঠকের চোখে – বটকৃষ্ণবাবুর বুলেট

পাঠকের চোখে – কালিয়া মাসান

পাঠকের চোখে – কালিয়া মাসান

শীতের সকাল

মাঝে মাঝে ভুলে যাই যে আমি আর কচি খোকা নই। ভূমিকা উপসংহারের বেড়াজালে শীতের সকাল, গ্রীষ্মের দুপুর বা বর্ষনমুখর রাত্রিকে আর বেঁধে রাখতে পারি না। বারো নম্বরের রচনায় শূণ্য পেলেও খুশি, কিন্তু শীতকালকে নতুন ভাবে চিনেছি অনেক বছর ধরে, তাই আজ একটা ট্রাই নিচ্ছি ছোটবেলার সেই রচনাটাকে একটু “আনাড়ি” স্টাইলে লিখতে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

পাঠকের চোখে – নটী নবনীতা

নটী নবনীতা

হায়রোগ্লিফের দেশে – বই আড্ডা

লেখক অনির্বাণ ঘোষের সাথে অরিজিৎ গাঙ্গুলির আড্ডা। বিষয় “হায়রোগ্লিফের দেশে”।

বেবি অন বোর্ড

কিন্তু তারপরেই টনক নড়ল যখন ওই ভিড়ের মধ্যেই সামনের সিটে বসে থাকা আরেক ব্রিটিশ ভদ্রমহিলা নিজের সিট থেকে উঠে দাঁড়িয়ে আমার সামনে দাঁড়ানো ব্যাজ পরিহিতাকে হাত নেড়ে বসার জন্য ডাকলেন। ইনিও থ্যাঙ্ক ইউ বলে আস্তে আস্তে ভিড় ঠেলে গিয়ে বসলেন সেই সিটে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ফুলঝুরি

সন্ধেবেলা অন্ধকার ঘনিয়ে আসতেই আমাদের ছাদে হল প্রথম টেস্টিং। আশেপাশের ছাদে পানতুবড়ির ভুসসস করে আওয়াজ শুনে ঘাড় ঘোরাতে গিয়েই দেখছি ছাদ অন্ধকার, মানে তুবড়ি খতম। পাঁচিলে বসিয়ে তিনবন্ধু একটাই ফুলঝুরিকে ধরিয়ে শুভ উদ্বোধন করলাম আমাদের স্বরচিত প্রথম তুবড়ির।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ভোকাট্টা

ছোটবেলাতেও আমাদের হাতে থাকত রিমোট, আর আকাশে উড়ত ড্রোন। তফাৎ শুধু একটাই ছিল। আকাশের সেই ড্রোন আর হাতের রিমোটের মধ্যে সংযোগসূত্রটা অদৃশ্য ছিল না। বেশ ভালোই চোখে পড়ত লাল বা নীল রঙের মাঞ্জা সুতো।

লেখা ও প্রচ্ছদ ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds