মানিকের পাঁচালী ~ পর্ব ৭ ~ বড়ই সুখের দিন

দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে এল সেই দিন। ১৯৫২ সালের অক্টোবর মাসে হয়েছিল প্রথম শুট। আর আজকে ২৬শে অগস্ট, ১৯৫৫, সেই “পথের পাঁচালী”-র মুক্তি। তিন বছরের অক্লান্ত পরিশ্রম, অধ্যবসায় আর পদে পদে বাধা বিপত্তি এড়িয়ে আজ প্রথম সন্তানের জন্মদিন।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

মানিকের পাঁচালী ~ পর্ব ৬ ~ আহা কি আনন্দ

মানিক বিস্ময়ে ঘুরে তাকালো। মনরো হুইলার দাঁড়িয়ে বোড়ালের সুবোধ দার সাথে। দাঁত বের করে একগাল হাসছে সুবোধ দা, আর তার মধ্যেই বলছে, “মানিক, এবার রুজভেল্টের সাথে দেখা হবে আমার। হা হা, কি আনন্দ, আমার জমি গুলো দেখো মানিক। সব তোমার জিম্মায় রেখে গেলুম।”

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

মানিকের পাঁচালী ~ পর্ব ৫ ~ সুর হবে তাল হবে

স্টুডিও তে অলোক দে সব ব্যবস্থা অলরেডি করে ফেলেছেন। উনি নিজেই বাঁশী বাজাবেন। রবিশঙ্করের জন্য একখানা সেতারও রাখা আছে। এছাড়াও আছে তার সানাই, ভায়োলিন, সারেঙ্গী, চমং আর কাচারি। ঠিক সন্ধ্যা ৬ টা থেকে রেকর্ডিং শুরু হল।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
প্রচ্ছদ ~ সৌমিক পাল
#AnariMinds

মানিকের পাঁচালী ~ পর্ব ৪ ~ ঐ যে দেখো দিনের আলো

কাগজ কলম ছাড়াই মনরো হুইলার কথা পাকা করে দেশ ছাড়লেন। ওনার কথা যেন দৈব আশীর্বাদ মনে হল মানিকের। পরিকল্পনা মতো সব ঠিকঠাক চললে বিশ্ব বাজারের দরজা খুলে যাবে ভারতীয় সিনেমার কাছে। মানিক ইউনিটের সবাইকে এই খবর দিয়েই সবচেয়ে আগে দেখা করতে গেল সরকারের প্রচার দপ্তরের মিস্টার মাথুরের সাথে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
প্রচ্ছদ ~ আলোর আলপিন
#AnariMinds

মানিকের পাঁচালী ~ পর্ব ৩ ~ ও মন্ত্রীমশাই

৮ মাস। ব্যবধান টা সত্যিই বেশ অনেকদিনের। কিন্তু আজ সকাল থেকেই ইউনিটের সবার উৎসাহ দেখে মনেই হচ্ছে না যে মাঝে এতো বড় ছেদ পড়েছিল। সবচেয়ে বেশি এনার্জি তো সদা তারুণ্যে ভরপুর চুনিবালা দেবীর। বয়সটা কে স্রেফ একটা সংখ্যা বানিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন, কে বলবে ওনাকে দেখে পঁচাত্তর!

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
প্রচ্ছদ ~ সৌমিক পাল
#AnariMinds

মানিকের পাঁচালী ~ পর্ব ২ ~ দেখোরে নয়ন মেলে

প্রথমেই অপু দুর্গার কাশফুলের ক্ষেতে শুটিং। কলকাতা থেকে সত্তর কিলোমিটার দূরে পালসিট বলে একটা জায়গায় শুটিং স্পট। গ্রামের শান্ত স্থির পরিবেশ, কাশফুলের ওপর দিয়ে হাওয়া বয়ে চলার শব্দ, টেলিগ্রাফ পোস্টের হালকা আওয়াজ। আর এই দৃশ্যপট কেই চিরে একটা ট্রেন ঢুকছে ধোঁয়া ছাড়তে ছাড়তে। সেই দৃশ্য অপু দুর্গার চোখে জন্ম দিচ্ছে এক প্রবল বিস্ময় আর আনন্দের। এমনটাই ভাবনা মানিকের।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মানিকের পাঁচালী ~ পর্ব ১ ~ আর বিলম্ব নয়

রাইটার্স বিল্ডিং এর ভেতরে এই ঘরেই অপেক্ষা করার নির্দেশ দিয়ে গেছেন একজন কর্মচারী। ডাক পড়লেই ঢুকতে হবে সামনের কেবিনে। তবে মানিক কিন্তু নার্ভাস নয়, বরং আজ ওর মনে পড়ে যাচ্ছে এতদিনকার লড়াইয়ের মুহূর্ত গুলো। স্ক্রিপ্টের কাগজ একটা আছে সঙ্গে, কিন্তু ডঃ বিধানচন্দ্র রায় কে গল্প টা শোনাতে সেটার দরকার পড়বে না।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

করুণাময় আর মিষ্টি কুল

বাঁধাধরা খরিদ্দার হবার মস্ত সুবাধে হলো, মুখ ফুটে বলার আগেই জিনিস প্লেটে চলে আসে।

অঙ্ক কি কঠিন

আমরা হয়তো বিউটিফুল মাইন্ড টিভি তেই দেখেছি, বা শকুন্তলা দেবীর বই ছুঁয়ে দেখেছি, কিন্তু আমরা খুব লাকি যে হাওড়ার কাসুন্দিয়া শিবতলার কাছে অশোকবাবুর মতো একজন অঙ্কপাগল লোকের হাতে আমরা সবচেয়ে কঠিন সাবজেক্ট টা এতো মজা করে শিখতে পেরেছি।

লেখক ~ অরিজিত গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat